বৃহস্পতিবার, অক্টোবর 22, 2020

বেবিস ডে আউট!
বেবিস ডে আউট!

বেবিস ডে আউট!

  • scoopypost.com - Jan 09, 2020
  • মনে করুন ‘বেবিস ডে আউট’ ছবির দৃশ্যটি। ছোট্ট বাচ্চাটি ছাদের কার্নিশ বেয়ে নেমে পড়ল। বেরিয়ে পড়ল নগর ভ্রমণে। ঠিক ওই ছবির দৃশ্যের পুনরাবৃত্তি যেন। স্পেনের তেনেরিফ শহরের প্লায়া পারাইসো এলাকার একটি হোটেলে চারতলায় ঠিক এরকম কাণ্ড ঘটিয়েছে এক খুদে। বোঝাই যায় সদ্য টলমলে পায়ে হাঁটতে শিখেছে মেয়েটি। শিশুমনে  উৎসাহ তাই অনেক বেশি। একেবারে জানলা বেয়ে লাগোয়া বারান্দার কার্নিশে এক প্রান্ত থেকে আর এক প্রান্ত টলমলে পায়ে হেঁটে বেড়াল। ভাগ্যিস হাওয়ার তোড়ে পড়ে যায়নি ওই খুদে বালিকা। ওই দৃশ্য দেখে আঁতকে উঠেছেন পড়শিরা। কারণ ওই দৃশ্য দেখলে যে কারোর শিরদাঁড়া বেয়ে হিমেল স্রোত বয়ে যাওয়া স্বাভাবিক।

    বারান্দার কার্নিশে খুদের হেঁটে বেড়ানোর দৃশ্যটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। আর তার পরেই নেটিজনরা এক হাত নিয়েছেন ওই খুদের বাবা-মাকে। একজন লিখেছেন, “ঘটনার জন্য একেবারেই দায়ি ওই শিশুর বাবা–মা। তাঁরা একবেরেই দায়ত্বজ্ঞানহীন। নিজের কীর্তি দেখে একদিন খিলখিলিয়ে হাসবে ওই দেবশিশু। এটা ভেবে অবশ্য খুব ভাল লাগছে।” একজন রেডিও জকি যেমন লিখেছেন, “ টেনেরিফের এই দৃশ্য ভয়ঙ্কর। ঠিক এই কারণেই আমি বলব, যখনই বাচ্চাদের নিয়ে হোটেলে উঠবেন, চেষ্টা করুন একতলার ঘর বুকিং করুন। ” আবার বিস্ময়ে কেউ বলেছেন, “ হে ভগবান! সাংঘাতিক দৃশ্য। আমি ঠিক এই কারণেই বাচ্চাদের চোখের আড়াল করিনা। এমনকী ওয়াশরুমে গেলেও দরজা খোলা রাখি। ” আর একজন তো বাবা-মাকে দায়ি করেছেন। তাঁর কথায়, “ কাণ্ডজ্ঞানহীন বাবা-মা নিশ্চয়ই ছাদের দরজা জানলা বন্ধ রাখেননি। ”