মঙ্গলবার, অক্টোবর 27, 2020

অনলাইনে বিড়াল, হয়ে গেল বাঘ
অনলাইনে বিড়াল, হয়ে গেল বাঘ

অনলাইনে বিড়াল, হয়ে গেল বাঘ

  • scoopypost.com - Oct 13, 2020
  • অনলাইনের হ‍্যাপা। কিনতে গেলেন বাঘের মাসি। পেয়ে গেলেন বাঘ। নরম‍্যান্ডির এক ফরাসি দম্পতি অনলাইনে বিজ্ঞাপন দেখে ৬০০০ ইউরো দিয়ে পোষ‍্য হিসেবে কিনেছিলেন শাভানা বিড়াল। গৃহপালিত এবং বনবিড়ালের শঙ্কর প্রজাতির এই বিড়াল কিনতে গিয়ে জোড়া ফাঁপরে পড়বেন কল্পনাও করতে পারেননি লা হাভারের ওই দম্পতি। একদিকে বিড়ালের বদলে বাঘ, অন‍্যদিকে বন‍্যপশু কেনার অপরাধে গ্রেফতার। একথা জানিয়েছে ডেইলি মেইল।
    ঘটনাটা অবশ্য ২০১৮ সালের। অনলাইনে শাভানা বিড়ালের বিজ্ঞাপন দেখে অর্ডার করে হাতে পান একটা ৩ মাসের বাঘের বাচ্চা। ওই দম্পতির অবশ্য দাবি, অর্ডার ডেলিভারির সময়।তাঁরা প্রথমে বুঝতেই পারেননি ওটা আসলে বাঘের বাচ্চা কারণ ওই শাবকটি দেখতে অন্যরকম ছিল। তাঁদের দাবি, ওটা ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রার ব‍্যাঘ্রশাবক ছিল তা তাঁরা গোড়ায় বুঝতেই পারেননি। সপ্তাহখানেক পর সন্দেহ হওয়ায় তাঁরা পুলিশে খবর দেন। দুবছর ধরে তদন্ত চলছে। স্থানীয় সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে প্রকাশ, পুলিশ সম্প্রতি ওই দম্পতি সহ ৯ জনকে গ্রেফতার করে।
    পোষ‍্য হিসেবে বিড়াল বাড়িতে রাখা গেলেও বন‍্যপ্রাণী এবং সংরক্ষিত প্রজাতি হিসেবে বাঘ পোষায় অনেক বিধিনিষেধ রয়েছে। অনুমোদন এবং সংশ্লিষ্ট ব‍্যবস্থাপনা ছাড়া বাঘ রাখা বেআইনি। লা হাভারের ওই দম্পতিকে সংরক্ষিত প্রজাতির প্রাণী বাড়িতে পোষ‍্য হিসেবে রাখার অপরাধে পুলিশ গ্রেফতার করে। যদিও তাঁরা পরে ছাড়া পান কিন্তু বাকি ৭ জনের জামিন অমিল। কারণ সংগঠিত অপরাধ এবং বন‍্যপ্রাণী আইন লঙ্ঘন করে সংরক্ষিত পশু পাচার ও বিক্রির অপরাধে আপাতত তাদের ঠাঁই গরাদে। তবে ফ্রান্সের জৈব বৈচিত্র্য দফতরের হেফাজতে নিরাপদ আশ্রয়ে পাঠানো হয়েছে ওই বাঘের বাচ্চাকে।