মঙ্গলবার, অক্টোবর 20, 2020

রাস্তায় শৌচ ! ধরা পড়বেন আয়নায়
 রাস্তায় শৌচ ! ধরা পড়বেন আয়নায়

রাস্তায় শৌচ ! ধরা পড়বেন আয়নায়

  • scoopypost.com - Jan 14, 2020
  • পথেঘাটে যেখানে সেখানে প্রস্রাব করা অনেক পুরুষেরই অভ্যাস। কিন্তু রাস্তায় খোলা আকাশের নীচে প্রস্রাব করতে গিয়ে এমন বিব্রত হতে হবে এমন কল্পনা বোধ হয় কেউই করেন না। শহর নোংরা করা এই বদ অভ্যাস রুখতে এক অভিনব উপায় বের করেছে বৃহৎ বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকা। শহরের যে সমস্ত জায়গায় খোলা আকাশের নীচে পুরুষরা মুত্র ত্যাগ করে সেখানে ৮ ফুট লম্বা, ৪ ফুট চওড়া আয়না লাগিয়ে দিয়েছে পুরসভা। এজন্য খরচ হয়েছে ৩০ হাজার টাকা। মুত্রত্যাগ করতে গিয়ে নিজের প্রতিবিম্ব দেখে স্বাভাবিকভাবেই ঘাবড়ে যাবেন যে কেউ। পাবেন লজ্জাও। সচেতনতা সৃষ্টিতে নানারকম প্রচার চালিয়ে কাজ না হওয়ায় আয়না লাগিয়ে শহর অপরিচ্ছন্নকারী ব্যক্তিকে লজ্জা দিতে চাইছে পুরসভা। এজন্য প্রাথমিকভাবে বেঙ্গালুরুর পাঁচটি জনবহুল এলাকাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। চার্চ স্ট্রিট, কে আর মার্কেট, কোরমঙ্গলা এলাকায় জ্যোতিনিবাস কলেজ, কুইনস রোড, ইএসআই হাসপাতালের কাছে ইন্দিরা নগরের রাস্তায় এতবড় আয়না লাগিয়ে দিয়েছে পুরসভা। আয়নাগুলিতে রয়েছে কিউআর কোড। নিকটবর্তী কোন এলাকায় শৌচালয় রয়েছে তা জানতে পারা যাবে এর থেকে। সেইসঙ্গে ডাস্টবিন ব্যবহার করা, যেখানে সেখানে থুথু না ফেলা ও মাত্র একবারই ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক পুনর্ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা নিয়ে বার্তা দেওয়া হয়েছে এই আয়নাগুলিতে।       স্বচ্ছ সুরবেক্ষণ কর্মসূচিতে জনসচেতনতা তৈরিতে রাস্তার কয়েকটি মোড়ে আয়না লাগানো হয়েছে। পরিচ্ছন্নতা ও নাগরিক বোধহীন মানুষদের জন্য অভিনব এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বৃহৎ বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকার বিশেষ কমিশনার ডি রণদীপ। রাস্তায় মুত্রত্যাগের জন্য ২০১৯ সালে ১০০ জনের জরিমানা হয়েছে। তাতেও বিশেষ কাজ না হওয়ায় এবার আয়না লাগিয়ে লজ্জা দিতে চায় পুরসভা। এদিকে ট্রাফিক সিগনাল ভঙ্গকারী চালক এবং হেলমেটহীন মটোরবাইক চালক ও আরাহীকে হুঁশিয়ারি দিতে ট্রাফিক পুলিশের প্রমাণ সাইজের ম্যানিকুইন লাগিয়েছে পুরসভা।