সোমবার, নভেম্বর 30, 2020

নিউ নর্মালে ভার্চুয়াল শিক্ষক দিবস স্কুলে স্কুলে
নিউ নর্মালে ভার্চুয়াল শিক্ষক দিবস স্কুলে স্কুলে

নিউ নর্মালে ভার্চুয়াল শিক্ষক দিবস স্কুলে স্কুলে

  • scoopypost.com - Sep 05, 2020
  • দু’দিন আগেও যে সমস্ত মাস্টারমশাই, দিনিমণিরা হোয়াটস অ্যাপ করতে পারতেন না তাঁরাই এবার স্মার্টফোন হাতে সেজেগুজে বসে পড়েছেন। বাড়ির ছেলে, মেয়েরাই তাঁদের গুগল মিট, জুম-সহ বিভিন্ন অ্যাপ ইনস্টল করে দিচ্ছেন। স্কুল থেকে নির্দেশ শিক্ষক দিবসের অনুষ্ঠান হবে এবার মোবাইলেই।

    নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে সড়গড় নন এমন শিক্ষক-শিক্ষকরাই নিউ নর্মাল জীবনে স্মার্টফোনকে কাছে টেনে ভার্চুয়ালি পালন করলেন শিক্ষক দিবস। ইতিমধ্যে তাঁদের অনেকেই শিখেছেন অনলাইনে ক্লাস করানো। এবার পালন করলেন শিক্ষক দিবস। ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস ভার্চুয়াল ভাবেই পালিত হল রাজ্যের বিভিন্ন জেলার স্কুলগুলোতে। তাতে অংশ নিলেন শিক্ষক-শিক্ষিকা থেকে পড়ুয়ারাও। দিনটির মাহাত্ম্যর কথা স্মরণ করে হল গান, কবিতাও। যে যেমন করে পারলেন নতুন অনুষ্ঠান করলেন।

    সাহাগঞ্জের একটি স্কুলে পড়ান রূপা বাগচি। শিক্ষক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রবীণ, নবীন শিক্ষিকারা মিলে এদিন ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান করলেন। আর এভাবে অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে খুব খুশি প্রবীণ শিক্ষিকা কণিকা মণ্ডল। জানালেন, শুরুতে একটু ভয় করছিল। তারপর সব ঠিকঠাকই হল।

    শিক্ষক দিবসে শিক্ষারত্ন পুরস্কার দেওয়া হয় শিক্ষাক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য। করোনা পরিস্থিততিতে বড় করে অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি। তবে ঠিক করা হয়েছিল করোনা পরিস্থিতিতে পড়াশেনা চালানোর জন্য যে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বিশেষ অবদান থাকবে তাঁদেরও শিক্ষারত্ন দেওয়া হবে। সুন্দরভাবে অনলাইন ক্লাস করানো, লকডাউন পরিস্থিতিতে অনলাইনে পরীক্ষা, রেজাল্ট দেওয়া-সহ একাধিক কাজের জন্য কয়েকজন শিক্ষককে দেওয়া হয়েছে শিক্ষারত্ন পুরস্কার।যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষারত্ন পুরস্কার পেয়েছন তিনজন।তালিকায় রয়েছেন হিন্দু স্কুলের জীবন বিজ্ঞান শিক্ষক। অনলাইনে ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত ১৪২টি ক্লাস নিয়েছেন তিনি। যাদপুর বিশ্ববিদ্যালেয়র অধ্যাপক সমীরণ চট্টোপাধ্যায় বর্তমান পরিস্থিতিতে স্টাডি মেটেরিয়াল আপলোড, অনলাইন পরীক্ষা নেওয়ার কাজ সামলেছেন সুন্দরভাবে।যদিও তাঁর কথায়, একা নন সকলের সাহায্যেই এ কাজ করেছেন।

    নিউ নর্মাল জীবনের ভার্চুয়াল শিক্ষক দিবস এবার অন্য মাত্রা পেয়েছেন বলে জানাচ্ছেন বিভিন্ন স্কুলের প্রবীণ শিক্ষকরা। যাঁরা ইউটিউব, হোয়াটস অ্যাপ, ভিডিও কলিং কোনওটাতেই অভ্যস্থ ছিলেন না জানাচ্ছেন করোনা পরিস্থিতিতেতে বাড়ির ছোটদের কাছে তাঁরাই এখন ছাত্রছাত্রী। কোনও স্কুল আবার হোয়াটস অ্যাপ, গুগলের কর্ণধার মার্ক জাকেরবার্গ, সুন্দর পিচাইকেও সংবর্ধনা জানাবেন ঠিক করেছেন। কারণ এই সমস্ত অ্যাপ, ব্রাউজারের সাহায্যেই যে চলমান পড়াশোনা।