রবিবার, নভেম্বর 29, 2020

প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুদ দুই কিস্তিতে
প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুদ দুই কিস্তিতে

প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুদ দুই কিস্তিতে

  • scoopypost.com - Sep 10, 2020
  • ৬৮ বছরে এই প্রথম। প্রভিডেন্ট ফান্ডে প্রাপ্য সুদ একবারে পাবেন না কর্মচারীরা। তাঁদের প্রাপ্য সুদের একটা অংশ মোদি সরকার পরে দেবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সম্ভবত ডিসেম্বরে বাকি অংশ দেওয়া হবে। প্রভিডেন্ট ফান্ড গঠিত হওয়ার পর এই প্রথম, মোদি সরকারের আমলে এমন হচ্ছে। বুধবার ই পি এফ ও তাদের বৈঠকে ঠিক করেছে কর্মচারীদের প্রাপ্য 8.50 শতাংশ সুদের 8.15 শতাংশ প্রথমে দেওয়া হবে বাকি 0.35 শতাংশ সুদ পরে দেওয়া হবে। ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে ইপিএফও 8.50 শতাংশ হারে সুদ দিতে দায়বদ্ধ।

    পি এফ ট্রাস্টি বোর্ড আগামি ডিসেম্বরে ফের বৈঠকে বসবে তখন বাকি সুদ কবে এবং কীভাবে দেওয়া হবে তা স্থির হবে। এই মুহূ্তে পি এফে ৬ কোটি সদস্য আছে। ইপিএফও এর আগে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কিছু মূলধন তারা এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ডে( ইটিএফ) বিনিয়োগ করবে।পি এফের মুল বিনিয়োগ থেকে যে আয় হবে বলে আশা করা হয়েছিল অতিমারির কারণে তা আশানুরূপ না হওয়ায় এই ইটিএফে বিনিয়োগের কথা ভাবা হয়েচ্ছিল। যাতে ঘাটতি মেটানো যায়।

    এদিকে অর্থ মন্ত্রক বহুদিন ধরেই শ্রমমন্ত্রকের ওপর চাপ তৈরি করছে যাতে তারা পি  এফের সুদের হার অন্যান্য স্বল্প সঞ্চয় সুদের হারের সমান করে দেয়। স্বল্প সঞ্চয়ে একমাত্র সুকন্যা সমৃদ্ধি প্রকল্পে 7.6 শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হয় । অন্যান্য প্রকল্পগুলিতে আরো কম। মোদি সরকার চাইছে এই পি এফের সুদের হারও সেই সব স্বল্প সঞ্চয় সুদের হারের সঙ্গে এক করে দিতে।

    শুধু তাই নয়, গত দশ-বারো বছরে এই প্রথম পি এফে এত কম সুদ দেওয়া হচ্ছে। গত মার্চ মাসে সরকারি আধিকারিকরা বলেছিল যদি সুদের হার 8.50 রাখা হয় তাহলে ৭০০ কোটি টাকা উদবৃত্ত হবে। এখন বোঝা যাচ্ছে তাও হচ্ছে না।