মঙ্গলবার, নভেম্বর 24, 2020

মিডিয়া ট্রায়ালের পক্ষে নয় কেন্দ্র
মিডিয়া ট্রায়ালের পক্ষে নয় কেন্দ্র

মিডিয়া ট্রায়ালের পক্ষে নয় কেন্দ্র

  • scoopypost.com - Oct 15, 2020
  • কেন্দ্র সরকার কোন    ও অবস্থাতেই মিডিয়া ট্রায়ালের পক্ষ নয়। বোম্বে হাইকোর্টে এ কথা জানিয়েছে কেন্দ্র সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল অনিল সিং বোম্বে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের ডিভিশন বেঞ্চকে এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সংবাদ মাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করার বা দেখাশোনা করার বিধিবদ্ধ সংস্থা আছে। আমাদের শুধু দেখা দরকার তাদের ব্যবস্থাপনায় কোনও ত্রুটি বা ফাঁক-ফোঁকর আছে কিনা। আর যেহেতু সমস্ত আদালতই মিডিয়া ট্রায়ালকে সমালোচনা করেছে তাই কেন্দ্র সরকারও কোনও বিষয়ে মিডিয়া ট্রায়ালকে সমর্থন করে না।

    সম্প্রতি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে বোম্বে হাইকোর্টে একাধিক জনস্বার্থ মামলা জমা পড়েছে। এই সব জনস্বার্থ মামলায় আবেদন করা হয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় যে সব খবর সম্প্রচার করা হচ্ছে তা বন্ধ এবং নিয়ন্ত্রণ করা হোক।

    কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল অনিল সিং আদালতকে জানান, সরকার মিডিয়া ট্রায়াল সমর্থন করে না। কিন্তু তাদের নিয়ন্ত্রণের জন্য ইতিমধ্যেই স্বশাসিত সংস্থা আছে। প্রিন্ট এবং ইলেক্ট্রনিক্স উভয় সংস্থার জন্যই নির্দেশিকা রয়েছে। অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল জানিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্টও ন্যাশানাল ব্রডকাস্টিং অ্যাস্যোসিয়েশনের( এন বি এ)  ভূমিকাকে স্বীকার করে নিয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট এও বলেছে, সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতায় কোনওভাবেই হস্তক্ষেপ করা উচিত নয়।তিনি বলেন, বাক স্বাধীনতার মৌলিক শর্তই হল সংবাদ মাধ্যমের কাজে কোনও রকম হস্তক্ষেপ থাকবে না। বিশেষ করে তারা কী বলবে বা তারা কী দেখাবে এই বিষয়ে সরকারি নিয়ন্ত্রণ থাকা উচিত নয়। কোনও রকম সেন্সরশীপ থাকা উচিত নয়।

    এদিকে জনস্বার্থ মামলার আবেদনকারীরা (যাঁদের মধ্যে একাধিক প্রবীণ আই পি এস অফিসার রয়েছেন) বলেছেন, আদালত সংবাদ মাধ্যমকে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্ত নিয়ে সংবাদ পরিবেশনে নিষেধাজ্ঞা জারি করুক। সেই মামলায় কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল ওই বক্তব্য পেশ করেন।

    এদিকে মুম্বই পুলিশ সম্প্রতি টেলিভিশন রেটিং পয়েন্ট নিয়ে যে  জালিয়াতি সামনে এনেছে এবং তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে সেই মামলা সি বি আই এর হাতে তুলে দেওয়ার আর্জি জানিয়েছে রিপাবলিক টি ভি।

    প্রসঙ্গত এই রিপাবলিক এবং আরও দুটি চ্যানেলের বিরুদ্ধে টি আর পি জালিয়াতির অভিযোগ এনেছে মুম্বই পুলিশ। যদিও রিপাবলিক টি ভি এই অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি করেছে, যেহেতু তারা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে এবং পালঘর সন্ন্যাসী হত্যা নিয়ে ধারাবাহিক খবর করেছে এবং মুম্বই পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে সেই কারণে তাদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলেছে মুম্বই পুলিশ। ঠিক সেই কারণেই তারা এই টি আর পি জালিয়াতির তদন্ত সি বি আই এর হাতে তুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে। মুম্বই পুলিশ অবশ্য এই দাবির বিরোধিতা করেছে।