বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 21, 2021

ট্রাম্পের বক্তব্য সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ
ট্রাম্পের বক্তব্য সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ

ট্রাম্পের বক্তব্য সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ

  • scoopypost.com - Nov 07, 2020
  • ভাবুন তো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বক্তব্য রাখছেন। মাঝপথেই তা বন্ধ করে দিচ্ছে সংবাদ মাধ্যম। সে কাজ করা তো দূরের কথা তা বোধহয় ভাবতেও পাববে না এ দেশের সংবাদ মাধ্যম। আর ঠিক সেই কাজটাই করে দেখাল মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের একাংশ।ঘটনাটা এ রকম। হোয়াইট হাউসে বক্তব্য রাখছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। একের পর এক ভিযোগ তুলছেন ডেমোক্র্যাটদের বিরুদ্ধে। কখনও বলছেন, ডেমোক্র্যাটরা ভোট চুরি করছে। কখনও বা অভিযোগ করছেন পেনসেনভিলিনিয়ায় মেইল ভোটে জালিয়াতি হয়েছে। আবার কখনো অভিযোগ করছেন,ভোট ঠিক মতো গোনা হচ্ছে না।

    কোনও রকম তথ্য প্রমাণ ছাড়া তিনি দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন দেখে অবাক হন বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। অনেকের মনেই প্রশ্ন উঠছিল এই সব অভিযোগের সত্যতা নিয়ে। কেউ কেউ চিন্তিত হচ্ছিলেন বিশ্বের দরবারে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনায়।

    এই পরিস্থিতিতে মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের একাংশ যা করল তা নজিরবিহীন।প্রেসিডেন্টের লাইভ অনুষ্ঠান মাঝপথেই থামিয়ে দিল এবিসি, এন বি সি এবং সিবিএসের মতো প্রথম সারির খবরের চ্যানেল। দ্বিধাহীন ভাষায় ওই চ্যানেলের সঞ্চালকেরা জানালেন, প্রমাণ ছাড়া দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন দেশের প্রেসিডেন্ট। তাই ভাষণের সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হল। মার্কিন সংবাদ মাধ্যের একাংশ যা করল , ভারতের তে তো বাদই দেওয়া গেল সারা বিশ্বেই এমন নজির আছে কিনা সন্দেহ। যদিও সি এন এন এবং ফক্স চ্যানেল ট্রাম্পের বক্তব্য পুরোটা সম্প্রচার করে। যদিও সি এন এন তাদের সম্প্রচারে সব সময়ই লিখে দিচ্ছিল, ট্রাম্প কোনও রকম প্রমাণ ছাড়াই উনি বলছেন যে ওনার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে।   

    এ সবই তিনি করছেন প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা ব্যবহার করেই। ভোটে হেরে গেলেও তিনি আগামি জানুয়ারি পর্যন্ত হোয়াইট হাউসে থাকবেন।সেই অবস্থায় সংবা মাধ্যমের এই কাজ নিয়ে তোল্পাড় হচ্ছে সারা বিশ্ব। সাধারণত যে বা যাঁরা ক্ষমতায় থাকেন তাঁদের বক্তব্য ঠিক না ভুল তা যাচাই না করেই সম্প্রচার করা সংবাদ মাধ্যমের রেওয়াজ। এ ক্ষেত্রে যা হল সেই কারণেই তাকে নজিরবিহীন বলে বলা হচ্ছে।

    প্রশ্ন হচ্ছে ভারতে যখন প্রায় সমস্ত সংবা মাধ্যমের বিরুদ্ধেই শাসক তোষণের অভিযোগ ওঠে সেখানে এই ধরণের বলিষ্ঠ পদক্ষেপ আশা করা আর দিবা স্বপ্ন দেখা একই বিষয় বলে মনে করছেন এ দেশের সংবাদ মাধ্যম।