বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 21, 2021

পরিবারেই বিরোধ ট্রাম্পের
পরিবারেই বিরোধ ট্রাম্পের

পরিবারেই বিরোধ ট্রাম্পের

  • scoopypost.com - Nov 09, 2020
  • হেরেও হার মানতে রাজি নন ডোনাল্ড ট্রাম্প।এবার তাঁকে হার স্বীকারে চাপ দিচ্ছেন স্বয়ং ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। সূত্রের খবর প্রকাশ্যে এ নিয়ে কোনও মন্তব্য বা বিবৃতি না দিলেও ট্রাম্প পত্নী মেলানিয়া ট্রাম্পও চাইছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প যেন হার স্বীকার করে নেন। মেলানিয়া তাঁর এই মনোভাবের কথা ট্রাম্পের একেবারে ঘনিষ্ঠ মহলে থাকা দু একজনকেই বলেছেন বলে সূত্রের খবর। ট্রাম্পের জামাই জেরার্ড কুশনার এর আগে ট্রাম্পকে পরাজয় স্বীকার করে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বলেই সংবাদ সংস্থা সি এন এন সূত্রে জানানো হয়েছে।

    হার নিশ্চিত হয়ে যাওয়ার পরেই বিবৃতি দিয়ে ট্রাম্প জানান বাইডেন জালিয়াতি করে জয় হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন। তিনি বলেন এই নির্বাচন এখানেই শেষ হচ্ছে না। ট্রাম্পের এই সব বিবৃতি সামনে আসার পরেই তাঁর একেবারে পারিবারিক পরিমণ্ডলে তাঁকে হার মেনে নেওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে বলেই খবর। নির্বাচনের সময় মেলানিয়া ট্রাম্প তাঁর স্বামীর হয়ে প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন। এবার তিনি এবং জামাই দু জনেই ট্রাম্পকে পরাজয় স্বীকার করে নেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন বলে সূত্রের খবর। শুধু পারিবারিক ক্ষেত্রেই নয়, রিপাবলিকানরাও ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই অবস্থান মেনে নেবেন কিনা তা নিয়ে সন্দেহ তৈরি হচ্ছে। বাইডেন ভোটে জেতার পর যে ভাবে আমেরিকানদের জন্য কথা বলছেন তাতে জনমত যে বাইডেনের দিকেই যাচ্ছে তা বুঝতে পারছেন রিপাবলিকান নেতারা। এই পরিস্থিতিতে তাঁরাও হয়ত ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই অনড় অবস্থান মেনে নেবেন না।

     ট্রাম্পের সমস্যার এখানেই শেষ নয়। সূত্রের খবর, তাঁদের ১৫ বছরের দাম্পত্যে এবার ছেদ টানতে চাইছেন মেলানিয়া ট্রাম্প। হোয়াইট হাউস থেকে ডোনাল্ড ট্রাম্প বিদায় নিলেই তিনি এই বিচ্ছেদের আইনি প্রক্রিয়া শুরু করবেন বলেই মনে করা হচ্ছে। মার্কিন নিয়াম অনুযায়ী প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন আইনি বিচ্ছেদ করতে হলে শাস্তির মুখোমুখি হতে পারেন মেলানিয়া। তিনি সেই ঝামেলায় যেতে চান না। তাছাড়া তিনি আরও একটি বিষয়ে নিশ্চিত হতে চান। যাতে তাঁর ছেলে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সম্পত্তির অধিকার পায় তা নিশ্চিত করা। এক ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডে এ সংক্রন্ত খবর প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত খবর ট্রাম্পের প্রাক্তন সহযোগী স্টেফানি ওকফ এবং ওমারোসা নিউম্যানকে উদ্ধৃত করা হয়েছে। ট্যাবলয়েডে প্রকাশিত খবরে দাবি করা হয়েছে মেলানিয়া ট্রাম্প এখন প্রতিটি মুহূর্তের দিকে নজর রাখছেন।