মঙ্গলবার, জানুয়ারী 26, 2021

ভ্যাকসিন নিয়ে কেন্দ্রীয় স্তরে বিতর্ক
ভ্যাকসিন নিয়ে কেন্দ্রীয় স্তরে বিতর্ক

ভ্যাকসিন নিয়ে কেন্দ্রীয় স্তরে বিতর্ক

  • scoopypost.com - Dec 02, 2020
  • কে ঠিক? কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব নাকি দেশের প্রধানমন্ত্রী? দেশের মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া নিয়ে এই দুই ব্যক্তির দু রকম বক্তব্য থেকে এই প্রশ্ন এবং বিতর্কে দেখা দিয়েছে।

    কোভিড আতঙ্ক এখনও দূর হয়নি। সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা কমলেও তা শেষ হয়ে যায় নি। সারা বিশ্বেই একই চিত্র। আমেরিকা এবং ইউরোপে বরং আবার নতুন করে সংক্রমণের বাড় বাড়ন্ত দেখে যাচ্ছে। আশার কথা এই পরিস্থিতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই কোভিড ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা একেবারে শেষ পর্যায়ে। ফলে এ বছর বড়দিনের আগেই অথবা নতুন বছরের শুরুতেই ভ্যাকসিন পেয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

    এর বাইরে নয় আমাদের দেশও। ভ্যাকসিন পেয়ে গেলে তা কীভাবে বিতরণ করা হবে। কারা আগে পাবেন, কে তা তৈরি করবেন –এসব নিয়ে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করেছেন প্রধানন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ঘুরে দেখেছেন তিন সংস্থার ভ্যাকসিন প্রস্তুতির কাজ।

    এসবের পাশাপাশি তিনি তিনি দেশবাসীকে আশ্বস্ত করেছেন যে সকলেই ভ্যাকসিন পাবেন। বিহার নির্বাচনের আগে তো তিনি বিনামূল্যে সকলকে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন। যা নিয়ে বিতর্ক দেখা দেয়।

    এ পর্যন্ত ঠিক আছে। গোল বাধে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণের  এক মন্তব্যে। মঙ্গলবার তিনি দাবি করেন সরকার কখনই সকলকে টিকা দেওয়ার কথা বলেনি।তিনি বলেন উদ্দশ্য হল, এমন কিছু সংখ্যক মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া যাতে সংক্রমণের শৃঙ্খলটা ভেঙে দেওয়া যায়। ঠিক কত মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হলে শৃঙ্খল ভাঙা যাবে সে বিষয়ে তিনি কছু জানাননি।তিনি দাবি করেন সরকার কখনই দেশের সব মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় নি।  

    তিনি বলেন একটা কথা স্পষ্ট ভাবে বলে দেওয়া দরকার, সরকার সকলকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা কখনই বলেনি। সরকার এর আগে এক কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা বলেছিল। যার মধ্যে আছেন ডাক্তার, নার্স সহ সমস্ত স্তরের স্বাস্থ্য কর্মী, পুলিশ, নিরাপত্তা কর্মী,৫০ বছরের ওপরের মানুষ এবং যাঁরা ৫০ এর কম কিন্তু কোমরবিডি রয়েছে।

    আই সি এম আরের প্রধান বলরাম ভার্গব বলেন, যদি আমরা একটা নির্দিষ্ট  সংখ্যক  মানুষকে ভ্যাকসিন দিতে পারি এবং চেনটা ভেঙে দিতে পারি তাহলে বাকি মানুষদের ভ্যাকসিন দেওয়ার দরকার হবে না। যাঁদের একবার কোভিড হয়েছে তাঁদেরও ভ্যাকসিন দেওয়ার দরকার আছে কিনা এই প্রশ্নের জবাবে রাজেশ ভূষণ বলেন, যাঁদের একবার কোভিড হয়েছে তাঁদের অ্যান্টবডি তৈরি হয়েছে। ফলে তাঁদের আর ভ্যাকসিন দেওয়া  দরকার কিনা তা নিয়ে সারা বিশ্ব জুড়ে আলোচনা দরকার। তিনি বলেন এই নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও একাধিক প্রশ্ন আছে। এই নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে আলোচনা হওয়া দরকার।