রবিবার, এপ্রিল 18, 2021

বিশ্বে প্রথম কোভিড ভ্যাকসিন একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূতকে
বিশ্বে প্রথম কোভিড ভ্যাকসিন একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূতকে

বিশ্বে প্রথম কোভিড ভ্যাকসিন একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূতকে

  • scoopypost.com - Dec 08, 2020
  • প্রায় এক বছর ধরে যে অতিমারিরি দাপটে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে সারা পৃথিবী, তাকে নিয়ন্ত্রণ করার পথ পেয়ে আনন্দে উচ্ছ্বসিত বিশ্বের মানুষ।এসে গেছে এই উপলক্ষ্যে ব্রিটেনে পালিত হচ্ছে ‘ভি ডে’ অর্থাৎ ভ্যাকসিন ডে। আর এই ভ্যাকসিন ডের প্রথম ব্যাক্তি তিনি।  

    বিশ্বে তিনিই প্রথম । যাঁকে দেওয়া হচ্ছে কোভিড ভ্যাকসিন। ৮৭ বছরের হরি শুক্লা । তিনিই প্রথম পাচ্ছেন ফাইজার-বায়োএনটেনের কোভিড ভ্যাকসিন। ভারতীয় বংশোদ্ভূত হরি শুক্লা থাকে নর্থ ইংলন্ডে। ব্রিটেনের এন এইচ এসের বেঁধে দেওয়া শর্তাবলী অনুযায়ী তাঁকেই প্রথম ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য বেছে নিয়েছে তারা।

    এন এইচ এস বা ন্যাশানাল হেলথ সার্ভিস এই টিকাকরণের জন্য জয়েন্ট কমি্টি অন ভ্যাকসিনেশন অ্যান্ড ইমুনাইজেশনের শর্ত অনুযায়ী হরি শুক্লাকে মনোনীত করা হয়। ব্রিটেনে স্থির হয়েছে যাঁদের বয়স ৮০ বছরের বেশি, যাঁদের মৃত্যুর সম্ভাবনা আছে তাঁদের আগে টিকা দেওয়া হবে। এরপর এন এইচ এসের কর্মীদের টিকা দেওয়া হবে। যাঁরা সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে এই অতিমারির বিরুদ্ধে নিরলস লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন।

    হরি শুক্লা বলেছেন, আমি অত্যন্ত আনন্দিত এবং গর্বিত যে আমি প্রথম ভ্যাকসিন পাচ্ছি। আমি মনে করি এটা আমার দায়িত্ব।তিনি বলেন, আমার আশা খুব তাড়াতাড়ি এই কোভিডের বিপদ থেকে আমরা মুক্তি পাব। এন এইচ এসেরও প্রশংসা করেছেন তিনি। হরি শুক্লা বলেন, তাঁরা যেভাবে কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন তা প্রশংসার যোগ্য।

    ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, কোভিড মুক্তির পথে এটা এক বড় পদক্ষেপ। তিনি সমস্ত বিজ্ঞানীদের, সমস্ত স্বেচ্ছাসেবক, যাঁরা ট্রায়ালে অংশ নিয়েছেন এবং এন এইচ এসের কর্মীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন, প্রশংসা করেছেন। বরিস জনসন বলেন এত কম সময়ে তাঁরা যে ভ্যাকসিন তৈরি করেছেন তার জন্য তাঁদের ধন্যবাদ।

    এর পাশাপাশি তিনি সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে কিছু সতর্ক বার্তাও শুনিয়েছেন। তিনি বলেন ব্যাপক হারে টিকাকরণে বেশ কিছু সময় লাগবে। ততদিন সমস্ত কোভিড বিধি মেনে চলতে হবে।

    ইউ কের স্বাস্থ্য সচিব ম্যাট হ্যাংকক বলেছেন, একদিন আমরা এই দিনটিকে, এই ভি-ডেকে স্মরণ করব।অতিমারিরি বিরুদ্ধে লড়াইয়ের এক বড় পদক্ষেপ হিসেবে মনে রাখব।