বুধবার, অক্টোবর 21, 2020

জুতো-ই যখন রক্ষাকর্তা
 জুতো-ই যখন রক্ষাকর্তা

জুতো-ই যখন রক্ষাকর্তা

  • scoopypost.com - Jan 19, 2020
  • সেফটি শু আবিস্কার করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের এক কর্মী।সম্প্রতি দেশের পরিস্থিতিকে নজরে রেখেই এমন আবিস্কার তাঁর।এই জুতোতে থাকছে ছ’শো ভোল্টের এ সি কারেন্ট ।এবং জিপিএস সিস্টেম যা দিয়ে সহজেই লোকেশন ট্র্যাকিং করা যাবে।আবার এই জুতোর দামও বেশ কম। অর্থাৎ মাত্র ৩০০ টাকা। জুতোর আভ্যন্তরীণ সার্কিটে লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির সাড়ে চার ভোল্টকে ছ’শো ভোল্টকে এসি ভোল্টেজে রূপান্তর করা যাবে।সার্কিটটি বানাতে মাত্র ১৪০ টাকা খরচ হয়েছে।সার্কিটের মধ্যে রয়েছে ডায়োড, ট্র্যানজিস্টর, ট্র্যা্ন্সফরমারের মত সহজলভ্য ইলেকট্রনিক জিনিসপত্র।সার্কিটটি জুতোর ভেতর বসানো থাকবে। কিছু ধাতব তার জুতোর বাইরের গায়ে লেগে থাকবে।তারগুলো উচ্চমানের ভোল্টেজ পরিবহণে সক্ষম। এটিতে একটি ফুল চার্জের ব্যাটারি আছে।এই ব্যাটারি চার্জিং হবে হাঁটতে হাঁটতেই। জুতোর ভিতরে থাকা সুইচটি দরকারের সময় অন করে দিতে হবে। ইভ টিজিং রুখতে মহিলাদের কাছে এই জুতো যথেষ্ট জনপ্রিয় হবে বলেই মনে কার হচ্ছে। সম্প্রতি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে খুলছে ডিআরডিও-এর সেন্টার। সেখানেও এই অভিনব জুতোটিকে উপস্থাপন করার চেষ্টা চালাচ্ছে রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।