শুক্রবার, নভেম্বর 27, 2020

ট্যাটু করার আগে কিছু কথা মাথায় রাখুন
ট্যাটু করার আগে কিছু কথা মাথায় রাখুন

ট্যাটু করার আগে কিছু কথা মাথায় রাখুন

  • scoopypost.com - Nov 22, 2020
  • জকের কথা নয়। ট্যাটুর চল রয়েছে বহু প্রাচীন কাল থেকেই। তখন মানুষ গাছের পাতা দিয়ে এবং ছুঁচ দিয়ে ট্যাটু করত। এখন অবশ্য অনেক কিছুই বদলে গেছে। মানুষ এখন নিজের শরীর টাকেই ক্যানভাস করতে চায়। ডাক্তাররা বলছেন, ট্যাটু করার আগে কিছু কথা জেনে রাখা দরকার।  

    এখন ট্যাটু করার জন্য এক ধরণের হাত মেশিন ব্যবহার করা হয়। কোনও রকম অবশ করা হয় না। চামডার একটু ভিতরেই রঙ দিয়ে চিত্র করা হয়ে থাকে।  এর ফলে অনেক সময়ই বেশ ব্যাথা হয়। কখনও কখনো রক্তপাতও হয়।এই কারণেই কিছু বিধিবদ্ধ সতর্কতা মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন ডাক্তাররা। তাঁরা বলছেন-

    • কোনও স্বীকৃত প্রতিষ্ঠানে যাওয়াই ভাল।

    • প্রথমেই দেখতে হবে ছুঁচ স্টেরিলাইজড করা কিনা। না হলে অনেক রকম ছোঁয়াচে অসুখ হতে পারে। বেশ কিছু ব্যাকটেরিয়া শরীরে ঢুকে যেতে পারে। যার ফলে হেপাটাইটিস ‘বি’ হতে পারে। এমনও উদাহরণ আছে এই ট্যাটু করাতে গিয়ে এইচ আই ভি সংক্রমণও হয়েছে। যে ছুঁচ আপানার শরীরে ঢোকানো হচ্ছে তা যদি ঠিকভাবে স্টেরিলাইজড না করা থাকে এবং ছুঁচের গোড়ায় যদি পুরোন রক্তের কণা থাকে তাহলেই এই ধরণের সংক্রামক ব্যাধি হতে পারে।

    এখন ট্যাটুতে যে রং ব্যাবহার করা হয় তাতে অনেক সময় এমন কিছু পদার্থ থাকে যা শরীরে ঢুকে পরবর্তী সময়ে সমস্যা তৈরি করে। অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে কোনও কারণে যদি এম আর আই করার দরকার হয় তাহলে ট্যাটুর রঙের কারনে তাতে অনেক সমস্যা দেখা দেয়। কারুর কারুর আবার অ্যালার্জির সমস্যা হয়।

    ত্বকের যে অংশে ট্যাটু প্রবেশ করানো হয় সেখানেই থাকে ঘর্মগ্রন্থি। দেখা গেছে এই ট্যাটুর কারণে শরীরে ঘাম নিঃসরণের মাত্রা ৫০ শতাংশ পর্যন্তও কম হতে পারে। যাঁদের শরীরে বেশি জায়গা জুড়ে ট্যাটু রয়েছে তাঁদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা তত বেশি।

    এছাড়াও কয়েকটি বিষয়ে সাবধান হতে হবে।

    • দেখতে হবে যিনি ট্যাটু করছেন তাঁর গ্লাভস পরা থাকে।সমস্ত সামগ্রী সিল করা প্যাকেট থেকে নিতে হবে। ছুঁচ অবশ্যই ভাল করে স্টেরিলাইজড করতে হবে।

    • আপনার ত্বক যেন ভাল করে স্টেরিলাইজড করা হয়।

    • ট্যাটু করা শেষ হয়ে গেলে ওই জায়গা খোলা এবং শুকনো রাখতে হবে। সুর্যের আলোর স্পর্শে আসা যাবে না।

    • গায়ের সঙ্গে অর্থাৎ যে জায়গায় ট্যাটু করা হয়েছে  সেখানে টাইট হয়ে বসে থাকে এমন পোষাক না পরাই ভাল।

    ট্যাটুর আরো এক সমস্যা আছে। অনেক সময়ই আমরা যা নিয়ে ভাবি না। কিন্তু সেটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। মানুষের জীবন পরিবর্তনশীল। আমাদের ভালবাসার মানুষ চিরদিন থাকেন না। আবার বদলায়। তাই স্থায়ী ট্যাটু আমাদের স্মৃতি ভারে জর্জরিত করতে পারে। অনেকেই তাই পরামর্শ দেন হেনা এবং ভেষজ দিয়ে অস্থায়ী ট্যাটু করান। কোনও সমস্যা  হবে না।