বুধবার, নভেম্বর 25, 2020

সপ্তমী স্পেশ্যাল ডাব চিংড়ি!
সপ্তমী  স্পেশ্যাল ডাব চিংড়ি!

সপ্তমী স্পেশ্যাল ডাব চিংড়ি!

  • scoopypost.com - Oct 23, 2020
  • দুর্গাপুজোর ভূরিভোজ বাগদা বা গলদা চিংড়ি ছাড়া অসম্পূর্ণ।চিংড়ির মালাইকারি, চিংড়ি ভাপা খেয়েছেন নিশ্চই। এবার কোভিড পরিস্থিতিতে যখন বাড়িতেই আটকা, তখন বরং রেঁধে ফেলুন ডাব চিংড়ি। বাসমতী চালের ভাতের সঙ্গে যখন ডাব চিংড়িটা মুখে যাবে, তখন ঠাকুর দেখতে না যেতে পারার কষ্টটা মনেই পড়বে না।

    লাগবে-টাটকা বাগদা চিংড়ি, নুন, চিনি, হলুদ, কাঁচালঙ্কা, সরষে, ডাব, ডাবের শাঁস, ডাবের জল, নারকেলের দুধ

    কী করে করবেন- চিংড়ি ভালো করে ছাড়িয়ে ধুয়ে নুন, হলুদ মাখিয়ে হাল্কা ভেজে নিন। সাদা ও কালো সরষে কাঁচা লঙ্কা, নুন ও সরষের তেল, ডাবের জল মিশিয়ে বেটে নিন। তার মধ্যে দিয়ে দিন ডাবের পাতলা শাঁস।এবার ভাজা চিংড়িতে ডাবের শাঁস দেওয়া সরষে বাটা মিশিয়ে দিন। দিয়ে দিন স্বাদমতো চিনি ও নারকেলের দুধ। দিন কিছুটা ডাবের জল। মিনিট পাঁচ-সাত মিডিয়াম আঁচে ফুটিয়ে নিন।

    ডাবের ওপরের অংশটা কেটে বড় করে গর্ত করে নিন। যাতে ভেতরে চিংড়ি পুরে দেওয়া যায়। আর কাটা অংশটা রেখে দিন। ডাবের নীচের অংশটাও সমান করে কেটে নিন যাতে মাইক্রোওয়েভ ওভেন বা গ্যাসে বসাতে সুবিধে হয়।

    এবার সরষে, নারকেলের দুধ দিয়ে একপ্রস্থ রান্না করে নেওয়া বাগদা চিংড়ি ডাবে ভেতর পুরে দিন। মুখটা ডাবের কাটা অংশ লাগিয়ে আটা দিয়ে টাইট করে দিন। যাতে ভেতর থেকে বাষ্প বেরিয়ে যেতে না পারে।এবার কড়াইতে জল দিয়ে তারওপর বাটি বসিয়ে ডাবটা বসিয়ে দিন। ওপর থেকে ঢাকা দিয়ে আধ থেকে চল্লিশ মিনিট ভাপিয়ে নিন।

    মাইক্রোওভেনে ২০০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় মিনিট ১৫-২০ গরম করে নিন।

    ডাব ঠান্ডা হলে আটা সরিয়ে পরিবেশন করুন চিংড়ি। গরম ভাত কিন্তু সঙ্গে মাস্ট।