রবিবার, এপ্রিল 18, 2021

শরীর গরম রাখতে শীতে যে খাবার জরুরি
শরীর গরম রাখতে শীতে যে খাবার জরুরি

শরীর গরম রাখতে শীতে যে খাবার জরুরি

  • scoopypost.com - Dec 17, 2020
  • শীতে কাঁপুনি হলেও, শীতের দিনগুলো বড়ই ভালো ঘুরতে-বেড়াতে যাওয়ার জন্য। শীত কাতুরে মানুষের জন্য এই সময়টা একটু সমস্যার ঠিকই, তবে খাওয়া-দাওয়ায় সামান্য রদ-বদল করলে শীতকে কিন্তু আপনি কাবু করতে পারবেন।

    শীতের দিনের ডায়েটে রাখুন কিছু খাবার যা আপনার শরীর সুস্থ ও গরম রাখবে-

    মরশুমি স্যুপ

    এই সময় বাঁধাকপি, ফুলকপি, ব্রকোলি, কড়াইশুটি, গাজর, পালং শাক টাটকা পাওয়া যায়। মরশুমি সবজি দিয়ে স্যুপ তৈরি করুন, তাতে ব্যবহার করুন আদা, রসুন ও গোলমরিচ। তাহলেই দেখবেন ঠান্ডা কেটে শরীর চনমনে লাগছে। আদা শীতের দিনে শরীর গরম করতে বিশেষ উপযোগী। এছাড়া যাদের ঠান্ডা লাগার ধাত আছে তাঁরা নিয়মিত আদা চা খেতে পারেন শীতে।

    মধু-বাচ্চাদের শীতের দিনে মধু খাওয়ানোর চল রয়েছে বহুদিন ধরেই। মধু শরীর গরম রাখার পাশাপাশি ঠান্ডা, শর্দি-কাশির সংক্রমণ প্রাথমিকভাবে ঠেকাতে শরীরকে সহযোগিতা করে।

    ঘি-ঘিও শীতের দিনে শরীরকে গরম রাখে। ঘি দিয়ে হালুয়া, লাড্ডু বানিয়ে খান। অথবা রুটিতে ঘি মাখিয়ে খান। খাঁটি ঘি পরিমিত রোজের খেলে শরীর তাতে ভালো থাকে। ত্বকের জেল্লা বাড়ে।

    ড্রাই ফ্রুটস ও নাটস- কাজু, আখরোট, পেস্তা, আমন্ড, পিনাট, কিসমিস সারা বছরই খাওয়া যায়। তবে এতে থাকা উচ্চমাত্রার পুষ্টিগুণ শরীরের জন্য কার্যকর। বাদামে থাকে ফ্যাট ও প্রোটিন। যা শরীরকে ভালো রাখে ও শীতের দিন শরীর গরম করতে সাহায্য করে।

    হোল গ্রেন

    রাগি, বজরা, মিলেট দিয়ে তৈরি খাবার ও রুটি শরীর গরম রাখে ও প্রয়োজনীয় কার্বোহাইড্রেটের জোগান দেয়। এতে থাকা ফাইবার পেট পরিষ্কার রাখে।

    জাগেরি বা গুড়-শীত মানেই পাটালি, নলেন গুড়। গুড় শরীরের জন্য ভালো তো বটেই, শীতের দিনের উপযোগী খাবারও।চিনির বদলে চায়েও স্বাস্থ্যসচেতন মানুষ এখন গুড় দিয়ে খান।

    তিল

    প্রচণ্ড ঠান্ডা যে সমস্ত জায়গায় পড়ে যেমন উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, হরিয়ানা, পঞ্জাব-সহ উত্তর ভারতেই তিল খাওয়ার চল আছে। গ্রাম বাংলাতেও তিলের খাজা, তিলের নাড়ু  ঘরে ঘরে হয়। এই তিলে রয়েছে যথেষ্ট পুষ্টিগুণ। সেইসঙ্গে শীতের দিনে যাতে ঠান্ডা না লাগে সেজন্যই তিলের চাকতি, নাড়ু খাওয়ার চল।

    গঁদের লাড্ডু-মূলত উত্তরভারতে এই লাড্ডু বেশি খাওয়া হয়। গঁদ প্রাকৃতিক উপাদান। গাছ থেকে মেলে। এই গঁদের লাড্ডু শরীর গরম রাখে।

    হিং-শরীর গরম রাখতে ও খাবার হজম করতে সহায়ক হিং। যে কোনও নিরামিষ খাবারে একটু হিং স্বাদ বদলে দেয়।

    মাংস


    আমিষাশিরা মাংস, ডিম খেলে শরীর গরম থাকবে। মাংসের চর্বি, উচ্চমাত্রার প্রোটিন শরীর গরম রাখে।