মঙ্গলবার, নভেম্বর 24, 2020

চার সাংসদকে নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেবেন সৌগতঃ অর্জুন সিং
চার সাংসদকে নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেবেন সৌগতঃ অর্জুন সিং

চার সাংসদকে নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেবেন সৌগতঃ অর্জুন সিং

  • scoopypost.com - Nov 21, 2020
  • তৃণমূলের প্রবীন সাংসদ সৌগত রায় যোগ দিচ্ছেন বিজেপিতে। বিজেপি নেতা অর্জুন সিং শনিবার জগদ্দলে এই দাবি করেছেন। তিনি ছট পুজোর এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এ কথা বলেন।শুধু অর্জুন সিংই নন, বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব তৃণমূল সহ সমস্ত দলের নেতাদের খোলা আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য। এই ভাবেই দল বদলুদের কাঁধে ভর দিয়ে গত লোকসভা নির্বাচনে ব্যাপক ফল করে বিজেপি।   

    উৎসব পর্ব মিটতে না মিটতেই রাজ্যে শুরু হয়ে গেছে রাজনৈতিক তৎপরতা। প্রতিদিনই কেউ না কেউ কোনও না কোন দল থেকে অন্য দলে যোগ দিচ্ছেন। আজ বিজেপিতে তো কাল বিজেপি থেকে তৃণমূলে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে এই পর্ব চলবে বহুদিন পর্যন্ত। সঠিক ভাবে বলতে গেলে বলতে হয় বিধানসভা ভোটে মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন পর্যন্ত এই দল বদলুদের আসা-যাওয়া লেগেই থাকবে।    

    রাজ্যে ক্ষমতা দখল করতে চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখছে না বিজেপি। ভোট পরিচালনার দায়িত্ব দিয়ে ভিন রাজ্য থেকে উড়িয়ে আনা হয়েছে একাধিক নেতাকে। তাঁরাই এ রাজ্যে বিজেপির ভোট নীতি নির্দ্ধারক। স্বাভাবিক ভাবেই বিজেপি এখন বড় নাও। দল বদলের ক্ষেত্রে তাই সেদিকেই পাল্লা ঝুঁকে।

    তা বলে সৌগত রায়? অর্জুন সিং দাবি করেছেন সৌগত রায় ক্যামেরার সামনে এক রকম দাবি করছেন, ক্যামেরা সরে গেলেই তিনি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন। অর্জুনের দাবি সৌগত রায় নিজেই শুধু নন, তিনি চারজন সাংসদকে নিয়ে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। অর্জুন সিং বলেন, সৌগত রায়কে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারীকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে দলে রাখতে।সেই কারণে তিনি ক্যামেরার সামনে এক কথা বলছেন আর আড়ালে অন্য কথা । অর্জুন বলেন  শুভেন্দু অধিকারী জননেতা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এঁদের কাঁধে ভর দিয়েই ক্ষমতায় এসেছেন। এখন এঁদের কৃতিত্বকে অস্বীকার করছেন। এখন তিনি চাইছেন নিজের ভাইপোকে চেয়ারে বসাতে অর্জুনের প্রশ্ন, শুভেন্দু অধিকারীর মতো নেতারা কেন  অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো ভুঁইফোড় নেতাকে মানবেন বলুন তো? তিনি দাবি করেন, শুধু শুভেন্দু অধিকারীই নন, তৃণমূলের বহু পুরোন নেতাই অভিষেকের বাড়বাড়ন্তে প্রচন্ড ক্ষুব্ধ। তাঁরা দলে ঠিকমতো কাজ করতে পারছেন না। এই  পরিস্থিতিতে তাই তাঁরা বিজেপিকেই স্বাভাবিক বিকল্প হিসেবে বেছে নিতে চাইছেন। তাঁর দাবি সৌগত রায়কে দিয়ে শুরু হবে, তবে শেষ কোথায় তা তিনি বলতে পারছেন না। তবে একটা কথা তিনি নিশ্চিত করে বলতে চান আগামি দিনে বিজেপিই এ রাজ্যে ক্ষমতায় আসছে।