রবিবার, নভেম্বর 29, 2020

দিলীপ ঘোষের মন্তব্যে চাপে বিজেপি
দিলীপ ঘোষের মন্তব্যে চাপে বিজেপি

দিলীপ ঘোষের মন্তব্যে চাপে বিজেপি

  • scoopypost.com - Oct 06, 2020
  • কুকথায় তাঁর জুড়ি নেই। যে কোনও ইস্যুতে তিনি দলের যে কোনও নেতার চেয়ে এই বিষয়ে বেশ কয়েক কদম এগিয়ে থাকেন। প্রধান প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেসকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ তিনি। তৃনমুলের সঙ্গেই সমান কদর্য ভাষায় পুলিশকে আক্রমণ করতেও পিছপা হন না বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এবারও তিনি আসরে নেমেছিলেন পুরো প্রস্তুতি নিয়েই। সারা দেশে হাথরসের ঘটনা নিয়ে বিজেপি যখন ঘরে বাইরে চাপের মুখে পড়েছে, তখন এ রাজ্যে দলের ভাবমূর্তি উদ্ধারে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে এগিয়ে এসেছিলেন দিলীপ ঘোষ।  

    উত্তরপ্রদেশের হাথরসের ঘটনার গুরুত্ব লঘু করে পশ্চিম্বঙ্গের আইনশৃঙ্খলা যে কত খারাপ তা তুলে ধরার চেষ্টা করছিলেন দিলীপ ঘোষ। সেই কাজ করতে গিয়ে  দলকে একেবারে পথে বসিয়ে ছেড়েছেন তিনি। দিলিপ ঘোষ এ রাজ্যের  আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি কতটা খারাপ তা বোঝাতে গিয়ে তুলনা টানেন উত্তরপ্রদেশ এবং  বিহারের। তাঁর এই মন্তব্যকে সঙ্গে সঙ্গে লুফে নেন বিরোধীরা। আর অসহায় হয়ে পড়েন দলে তাঁর সতীর্থরা। পরিস্থিতি এমন হয়ে দাঁড়িয়েছে যে দিলীপ ঘনিষ্ঠ নেতারাও মুখে কুলুপ এঁটেছেন।

    রাজ্য থেকে কেন্দ্রের বিজেপি নেতারা যখন উত্তরপ্রদেশের হাথরস কিম্বা বলরামপুরের ঘটনা থেকে সকলের নজর ঘোতারে তৎপর তখন দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্য বিরোধীদের হাতে অস্ত্র তুলে দিল বলেই মনে করছেন বিজেপির রাজ্য নেতারা। যে কারণে দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের দায় নিতে কেউ যেমন এগিয়ে আসেন নি, তেমনই কোনও ব্যাখ্যাও কেউ দিতে চান নি।

    নিচু তলার কর্মীরা বলছেন , দলের এইসব নেতারা তো  বলে খালাস, তারপর তার ম্যাও সামলাতে হয় আমাদের। তৃণমূল স্তরে মানুষের সঙ্গে প্রতিদিন আমাদেরই যোগাযোগ রাখতে হয়। নেতাদের এই ধরণের দায়িত্ব জ্ঞানহীন মন্তব্যের জন্য আমাদেরই সাধারণ মানুষের কাছে জবাবদিহি করতে হয়। তাঁরা বলছেন, কোনও তৃণমূল নেতাকে আক্রমণ করে কুকথা বলা আর রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির প্রসঙ্গে উত্তরপ্রদেশ এবং বিহারের উদাহরণ তুলে ধরা এক নয়। এরফলে জাতীয় স্তরে বিজেপিকে জবাব দিতে হবে। মনে রাখতে হবে উত্তরপ্রদেশে বিজেপির সরকার এবং বিহারে বিজেপি জোট সরকারের শরিক। শুধু তাই নয় আগামি মাসেই বিহারে ভোট। সেই ভোটের ময়দানে কোনও বিজেপির রাজ্য সভাপতির এহেন মন্তব্য দলের কাছে খুবই বিড়ম্বনার হয়ে উঠেছে।   

    তৃণমূল অবশ্য এই মন্তব্যের ফায়দা তুলতে আসরে নেমে পড়েছে। তারা বলছে সত্যি কথা বেরিয়ে পড়েছে। বিজেপি নিজেই জানে দেশের সবচেয়ে বড় রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এখন কেমন। তাঁরা বলছেন, কেন্দ্র সরকারের এন সি এর বি রিপোর্টেও সে কথার উল্লেখ রয়েছে। দিলীপ ঘোষের মন্তব্য তাকেই আরও একবার মান্যতা দিল।