সোমবার, অক্টোবর 26, 2020

ছুটির গেরোয় বীণাপাণি!
ছুটির গেরোয় বীণাপাণি!

ছুটির গেরোয় বীণাপাণি!

  • scoopypost.com - Jan 03, 2020
  • নানা মুনির নানা মত। বিদ্যাদেবী কবে পুজিতা হবেন তা নিয়ে দুই পঞ্জিকা বা পাঁজির দু’রকম মত। সরস্বতী পুজো হয় মাঘ মাসের শুক্ল পঞ্চমী তিথিতে। যা শ্রীপঞ্চমী বা বসন্ত পঞ্চমী নামেও পরিচিত। তিথি নির্ধারণ হয় চান্দ্রমাস অনুযায়ী। সৌরমাস সাধারণভাবে ৩০ দিন হলেও চান্দ্রমাস ২৭ দিনের। ফলে সৌরমাসের সঙ্গে চান্দ্রমাসের ফারাক হয় তিন থেকে চার দিনের। পঞ্জিকা দু’মতের। সৌরসিদ্ধান্ত ও দৃকসিদ্ধান্ত। দু’মতের দুই পাঁজি -- বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পাঁজি ও গুপ্ত প্রেস পাঁজি রাজ্যে জনপ্রিয়। পাঁজি ভেদে  যেহেতু তিথি শুরু ও শেষের সময় হেরফের হয় সেহেতু হেরফের পুজোর দিনও। আর সেজন্য বিভ্রান্তি ছড়ায় সরকারি ছুটির দিন নিয়েও।

    এবারও দুই পাঁজির দু’রকম নির্ঘন্টের জেরে শ্রীপঞ্চমী তিথিতে সরস্বতী পুজো দুদিনই করা যাবে। বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পাঁজি অনুযায়ী ১৪ মাঘ, বুধবার সকাল ১০ টা ৪৬ মিনিটের পর থেকে পঞ্চমী তিথি পড়ছে অর্থাৎ এই সময়ের পর থেকে সরস্বতী পুজো করা যাবে। পুজো করা যাবে পরদিন অর্থাৎ ১৫ মাঘ বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টা ২০ মিনিট পর্যন্ত। আবার গুপ্তপ্রেস পাঁজি অনুযায়ী পঞ্চমী তিথি পড়ছে ১৪ মাঘ সকাল ৮ টা ৪৬ মিনিটে। থাকবে পরদিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা ৫৬ মিনিট পর্যন্ত।   

    এদিকে সরস্বতী পুজোর সরকারি ছুটি বৃহস্পতিবার। ফলে স্কুল, কলেজ, একাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পুজোর দিন নিয়ে তৈরি হয়েছে বিভ্রন্তি।