রবিবার, নভেম্বর 29, 2020

পথ দেখাক বেলুড় বিদ্যামন্দির, আর্জি কেন্দ্রের
পথ দেখাক বেলুড় বিদ্যামন্দির, আর্জি কেন্দ্রের

পথ দেখাক বেলুড় বিদ্যামন্দির, আর্জি কেন্দ্রের

  • scoopypost.com - Oct 08, 2020
  • চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র সরকার। বেলুড়ের রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যামন্দিরকে। কেন্দ্রের আর্জি, বেলুড় আশপাশের কলেজগুলিকে একটু পরামর্শ দিক। কীভাবে তাদের শিক্ষার মান বাড়ানো যায় , কোন পদ্ধতি্তে ছাত্রদের পড়ালে তাদের মান বাড়বে এবং শিক্ষার প্রতি তাদের আগ্রহ বাড়বে। এইসব বিষয়ে বেলুড়ের রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যামন্দির পার্শ্ববর্তী কলেজগুলিকে একটু পথ দেখাক। বেলুড়কে এই আর্জি জানানোর কারণ আছে। গত কয়েক বছর ধরে বেলুড়ের বিদ্যামন্দির ধারাবাহিক ভাবে জাতীয় স্তরে ভাল ফল করে আসছে।সেই সুবাদেই তাদের দায়িত্ব দিতে চায় কেন্দ্র।

    কেন্দ্রীয় ইলেক্ট্রনিক্স, ইনর্ফমেশন টেকনলজি, যোগাযোগ এবং মানব সমদ উন্নয়নের প্রতিমন্দ্রী সঞ্জয় ধোতরে এই চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে তিনি প্রথমেই ্স্বশাসিত এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ন্যাশানাল ইন্সটিটিউশনাল র‌্যাঙ্কিং ফ্রেম ওয়ার্ক বা এন আই আর এফে ভাল ফল করার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন এই কারণে আমার মনে হয় এই উৎকর্ষতা অর্জনের জন্য সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলিকেও পরামর্শ দিতে এগিয়ে আসা উচিত। তিনি বলেন, আপনাদের যে বৈশিষ্ট আছে তা অন্যদের মধযে ছড়িয়ে দিন যাতে তারাও নিজেদের উন্নতি করতে পারে। তবে কেন্দ্রের লেখা ১১ জুনের চিঠি বিদ্যামন্দিরে এসে পৌঁছেচে অক্টোবরের ৬ তারিখ। স্বামী একচিতানন্দজী মহারাজ এই চিঠির কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব যা আমাদের নিতে বলা হয়েছে। আমরা এই বিষয়ে আলোচনা করব। কীভাবে অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পরামর্শ দেওয়া যায় তার রূপরেখা তৈরি করতে হবে। গত তিন বছর ধরে এন আই এফ আরে ভাল ফল করার স্যবাদেই এই সম্মান আমাদের দেওয়া হচ্ছে বলেই আমরা মনে করি। ২০১৮, ১৯ এবং ২০২০ সালে এই এন আই এফ আরে বিদ্যামন্দির যথাক্রমে নবম, একাদশ এবং সপ্তম স্থান লাভ করেছিল। তিনি বলেন, প্রাতিষ্ঠানিক দিক থেকে আমরা  অন্য প্রতিষ্ঠাঙ্কে সাফল্য এবং উৎকর্ষ লাভে সহায়তা করার নীতিতে বিশ্বাস করি।

    কলেজের প্রবীণ মহারাজ এবং শিক্ষকরা জানিয়ছেন, কোন কোন কলেজের তাঁদের  পরামর্শের প্রয়োজন তা স্থির রাজ্যের শিক্ষা দপ্তরের সঙ্গে তাঁরা কথা বলবেন।