বুধবার, নভেম্বর 25, 2020

রবিবার নিট, শুক্রবার কেন্দ্র বদলের নির্দেশে বিভ্রান্তি
রবিবার নিট, শুক্রবার কেন্দ্র বদলের নির্দেশে বিভ্রান্তি

রবিবার নিট, শুক্রবার কেন্দ্র বদলের নির্দেশে বিভ্রান্তি

  • scoopypost.com - Sep 11, 2020
  • হয়রানি পিছু ছাড়ছে না। রবিবার দেশজুড়ে মেডিক্যালের প্রবেশিকা পরীক্ষা নিট। আর তার কিছুক্ষণ আগে বদল হল রাজ্যের ৩৬০-সহ গোটা দেশের ২০ হাজার ৫০২ জন পরীক্ষার্থীর কেন্দ্র। নিটের আয়োজক সংস্থা ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সির ঘোষণায় রীতিমতো বিপাকে পরীক্ষার্থীরা। এমনিতেই করোনা পরিস্থিতিতে ট্রেন চলছে না। গণ পরিবহণ ব্যবস্থা সম্পূর্ণ স্বাভাবিক না হওয়ায় সামাজিক দূরত্ববিধি বজায় রেখে পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়াটাই চিন্তার হয়ে দাঁড়িয়েছে।
    শেষ মুহূর্তে পরীক্ষা কেন্দ্র বদল হল কেন? জানা গিয়েছে, করোনা পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের ছাত্রছাত্রীরাই কেন্দ্র বদলের জন্য আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদনের ভিত্তিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এনটিএ-র বক্তব্য, শেষ মুহূর্তে পরীক্ষা কেন্দ্র বদল হচ্ছে বলেই ফোন করে ও ই-মেলে ছাত্রছাত্রীদের তাঁদের নতুন পরীক্ষা কেন্দ্র সম্পর্কে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ডাউনলোড করতে বলা হচ্ছে নতুন অ্যাডমিট কার্ডও।
    করোনা আবহে নিট পরীক্ষা নিয়েই আপত্তি ছিল পড়ুয়া ও অভিভাবকদের বড় অংশের। তবে শেষপর্যন্ত পরীক্ষার পক্ষেই রায় দেয় আদালত। এদিকে, কেন্দ্র অনুযায়ী কীভাবে কোথায় যেতে হবে, তা নিয়ে পরিকল্পনা করে রেখেছিলেন পড়ুয়া ও অভিভাবকরা। শেষ মুহূর্তে কেন্দ্র বদলে, নতুন করে অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোডের চক্করে পড়ুয়ারা বিভ্রান্ত। তবে এনটিএ জানিয়েছে, সমস্ত ক্ষেত্রে শহর বদল হয়নি, কেন্দ্র বদলে দেওয়া হয়েছে।
    নিট নিয়ে শুরু থেকেই হয়রানির শিকার পড়ুয়ারা। ১৩ সেপ্টেম্বর নিট পরীক্ষা হবে কি না, তা নিয়ে একপ্রস্থ দোটানা। তারপর আবার ১২ সেপ্টেম্বর এ রাজ্যে ছিল লকডাউন। তবে শেষপর্যন্ত পরীক্ষার্থীদের কথা ভেবে মুখ্যমন্ত্রী লকডাউন তুলে নেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এনটিএ-র কেন্দ্র বদলের ঘোষণায় রীতিমতো বিপাকে পরীক্ষার্থীরা।