বুধবার, মে 12, 2021

বিধানসভায় গিয়ে অপমানিত 'আমন্ত্রিত' রাজ্যপাল
 বিধানসভায় গিয়ে অপমানিত 'আমন্ত্রিত' রাজ্যপাল

বিধানসভায় গিয়ে অপমানিত 'আমন্ত্রিত' রাজ্যপাল

  • scoopypost.com - Dec 05, 2019
  • বৃহস্পতিবার সকালে রাজ্যের বিধানসভায় ঢুকতে গিয়ে কার্যত দাঁড়িয়ে থাকতে হল খোদ রাজ্যপালকেই।  রাজ্যপালের জন্যে নির্দিষ্ট তিন নম্বর গেট বন্ধ থাকায় শেষপর্যন্ত অন্য গেট দিয়ে বিধানসভায় ঢোকেন জগদীপ ধনকর। এই ঘটনা নিয়ে বেনজির নাটকের সাক্ষী রইল বিধানসভা। আমন্ত্রিত হয়ে এলেও রাজ্যপালের অভ্যর্থনায় দেখা যা নি কাউকেই। পুরো ঘটনায় ক্ষুব্ধ রাজ্যপালের মন্তব্য, বিধানসভার অধ্যক্ষকে আগাম চিঠি দিয়ে জানানো সত্ত্বেও অধ্য়ক্ষ তো বটেই রাজ্যের তরফে কাউকে তিনি দেখতে পাননি। তাঁর অভিযোগ, চিঠি দেওয়ার পর অধ্যক্ষও প্রথা মেনে তাঁকে জবাবও দিয়েছিলেন। রাজ্যপালের দাবি, অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর কাছে জানতেও চেয়েছিলেন যে, তিনি সস্ত্রীক আসবেন কিনা? এত কিছুর পরেও কি এমন ঘটল যে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে তিনি এলেও প্রথাগতভাবে তাঁকে স্বাগত জানাতে কেউই সেখানে হাজির ছিলেন না। গোটা ঘটনায় ক্ষুদ্ধ রাজ্যপাল বিধানসভার বাইরে উপস্থিত সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, “অধিবেশন স্থগিত মানেই বিধানসভা বন্ধ নয়। স্পিকারই বলেছিলেন আমাকে স্বাগত জানাবেন।” সেটা জানতে পেরেই আমি খুশি হয়ে চিঠি দিয়ে সম্মতি জানিয়েছিলাম। তবে কী এমন ঘটল যে স্পিকার অনুপস্থিত থাকলেন? “খুব অপমানিত বোধ করছি। এভাবে গণতন্ত্র চলতে পারে না।”

    যদিও বিধানসভা সূত্রে জানানো হয়েছে যে, অন্যত্র কর্মসূচি থাকায় আজ বিধানসভায় উপস্থিত থাকতে পারবেন না অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। ক্ষুব্ধ রাজ্যপাল জানান, অধ্যক্ষকে চিঠি লিখবেন তিনি। এই ঘটনা মোটেই কাম্য নয়। বিজেপির জাতীয় কর্মসমিতির সদস্য মুকুল রায়ও এই ঘটনার জন্য সরাসরি রাজ্য সরকারকেই দায়ি করেছেন। কংগ্রেস ও বামফ্রন্ট এই ঘটনাকে নজিরবিহীন আখ্যা দিয়েছে।